পুলিশ আবাসন থেকে উদ্ধার এক পুলিশ আধিকারিকের ঝুলন্ত দেহ

0
461

সংবাদদাতা, কলকাতাঃ-

ফ্রেজারগঞ্জ থানার দায়িত্ব রত পুলিশ আধিকারিকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হল পুলিশ বিভাগের নিজেরই আবাসনে। এই মর্মান্তিক ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল দক্ষিন ২৪ পরগনার ফ্রেজারগঞ্জ এলাকায়। পুলিশ তাদের নিজস্ব সূত্রে জানিয়েছে, বড়দিনের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে বকখালি ব্রিজ থেকে হেনরিজ আইল্যান্ড অব্দি নিজের ডিউটি করছিলেন গৌতম বিশ্বাস নামে ওই পুলিশ আধিকারিক। নিজের স্থানে দাঁড়িয়ে ভিড় এলাকায় মানুষ কে সতর্ক ভাবে রাস্তা পারাপার ও করে দিচ্ছিলেন গৌতম বাবু। বড় দিনের অনুষ্ঠানের জন্য যে ডিজে বক্স ব্যবহার হচ্ছিল সেগুলো পুলিশ বিভাগ সহ গৌতম বাবু ও আস্তে চালানোর জন্য সধারন মানুষকে সতর্ক করছিলেন। এদিন গৌতম বাবু সারাদিন ডিউটি করে রাত ১০ টা নাগাদ থানায় ফেরেন। এরপরই যথাযত তিনি তার কোয়াটারে চলে যান। কিন্তু তার পরের দিন বেলা গড়িয়ে গেলেও থানায় না আসায় বাকি পুলিশ কর্মীরা আবাসনে যান গৌতম বাবুকে ডাকতে। অনেকক্ষন ডাকাডাকিতে সাড়া না মেলায় আবাসনের জানালা দিয়ে মুখ বাড়াতেই পুলিশ কর্মীরা দেখতে পান গৌতম বাবু গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলছে। তৎক্ষনাৎ পুলিশ কর্মীরা দেহটিকে নিচে নামিয়ে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। এরপর খবর দেওয়া হয় গৌতম বাবুর পরিবার পরিজনদের। পুলিশ সূত্রে এও জানা গেছে, কয়েকমাস আগেই প্রমোশনের পর মন্দিরবাজার থেকে ফ্রেজারগঞ্জ উপকূল থানার হেড অব দা ডিপারমেন্ট পদে নিযুক্ত করা হয় গৌতম বাবুকে। মিশুকে, ভদ্র স্বভাবের মানুষ গৌতম বাবু খুব সততার সাথেই নিজের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন। যে কোন অভাব, অভিযোগ আপদ, বিপদে নিঃস্বার্থ ভাবে মানুষের উপকার করতেন। পুলিশ বিভাগের প্রাথমিক অনুমান, মানসিক চাপের জন্যই গৌতম বাবু আত্মঘাতী হয়েছেন। গৌতম বাবুর আকস্মিক মৃত্যুতে এলাকায় নেমে এসেছে গভীর শোকের ছায়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here