বাবা মাকে ছেড়ে আলাদা হ‌ওয়ার জন্য স্ত্রী চাপ দিলে স্বামী ডিভোর্স দিতে পারেন,মান্যতা দিলো কোর্ট

0
1155

এই বাংলায় ওয়েব ডেস্কঃ- ৩১ মে রবিবার একটি বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা হয় কেরালা হাইকোর্টে। এক ব্যক্তি বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা দায়ের করার সময় কারণে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করেন যে তার স্ত্রী তার মাকে ছাড়ার জন্য তার উপর ক্রমাগত মানসিক চাপ সৃষ্টি করছে। তার স্ত্রী চান শুধু স্বামী ও সন্তানকে নিয়ে ঘর করতে। শাশুড়ি কে তার স্ত্রী সহ্য করতে পারে না।তাই তার স্ত্রী হুমকিও দিচ্ছেন যে তার স্বামী যদি তার কথা না শোনেন তাহলে তিনি আত্মঘাতী হবেন।আর এজন্য স্বামী ও শাশুড়ি কেই দায়ি করে লিখে যাবেন কাগজে। হাইকোর্টের শুনানি দিতে গিয়ে বিচারক এ এম শফিক ও মেরি জোসেফ বলেন যে-স্বামীকে তার বাবা-মাকে ছাড়ার জন্য চাপ দেওয়া এক ধরণের মানসিক নির্যাতন। এটি মানসিক নির্যাতন কেননা এ ক্ষেত্রে স্বামীকে দুই জনের মধ্যে একজনকে বাছতে হয়। এই পরিস্থিতিতে যদি আর কোনো গুরুত্বপূর্ণ কারণ নাও থাকে তবু স্বামী ইচ্ছা করলেই ডিভোর্স নিতে পারেন। অপরদিকে স্ত্রীর অভিযোগ ছিলো যে শাশুড়ির মদতেই তার স্বামী মদ খেয়ে বাড়ি এসে তার সাথে খারাপ আচরণ করেন। সন্তানকে বকাঝকা করেন। অপরদিকে শাশুড়ি বৌমাকে দিয়েই সংসারের সকল কাজ করিয়ে নেন। তাই স্ত্রী চান না শাশুড়ির সাথে থাকতে। স্ত্রী চান স্বামী ও সন্তান নিয়ে আলাদা থাকতে। এই নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে হাইকোর্টের বেঞ্চ এর তরফ থেকে বলা হয় যে- স্ত্রী স্পষ্টতই বলছেন যে তিনি শাশুড়ির সাথে থাকতে চান না। এটাই এই বিচ্ছেদের আবেদনের পিছনের মূল কারণ। স্বামীর মদ খাওয়ার কারণটির জন্য মানসিক চাপ ও অশান্তি ই দায়ি। আবার প্রতি সংসারেই বড়রা সন্তানদের বকাঝকা করেন এইগুলো বড়ো কোনো কথা নয়। বাড়ির বৌমাদের বাড়ির কাজ ও করতেই হয়। সকল অভিযোগ দেখার পর বোঝা যায় যে বাড়ির কাজ করা নিয়েই অসন্তোষ ও শাশুড়ির উপর রীতিমতো রাগ জমেছে গৃহবধূর মনে।আর এই কারণেই তিনি স্বামীকে নিয়ে আলাদা হতে চান। এ জন্য তিনি স্বামীর উপর মানসিক নির্যাতন করছেন। স্বামীর উপর মাকে ছাড়ার জন্য এই যে চাপ দেওয়া হচ্ছে এটি এক প্রকার মানসিক নির্যাতনের ই সামিল।তাই বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন এক্ষেত্রে মেনে নিয়েছে হাইকোর্ট। অর্থাৎ হাইকোর্ট মান্যতা দিলো যে স্বামীর উপর স্ত্রী যদি চাপ তৈরি করেন বাবা-মাকে ছাড়ার জন্য,তাহলে স্বামী কোর্টের দ্বারস্থ হতেই পারেন এবং বিবাহ বিচ্ছেদ ও করতে পারেন সেক্ষেত্রে আর কোনো কারণ না থাকলেও এই একটি কারণের ভিত্তিতেই বিবাহ বিচ্ছেদ মান্যতা পাবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here