মিম কাঁটায় ভেস্তে যাচ্ছে জোটের সাথে আব্বাসের গাঁটছড়ার সম্ভাবনা

0
267

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতাঃ- আসাদউদ্দিন ওয়াইসীর ‘মিম’ কাঁটায় শেষ পর্যন্ত ভেস্তে যেতে পারে বাম-কংগ্রেস জোটের সাথে আব্বাস সিদ্দিকির সাম্ভাব্য গাঁটছড়া। মঙ্গলবার সিপিএমের সদর দপ্তরে বৈঠকের পর, বুধবারই নদীয়ায় দলীয় সভায় আব্বাস হুঙ্কার দিলেন, ” কারো দয়া চাইছি না। আসন বন্টনের পক্ষে আমরা নির্দিষ্ট কিছু প্রস্তাব দিয়েছি। ওদের মানতে অসুবিধা হলে, আমার কোনো অসুবিধা নেই। আমার সামনে অনেক রাস্তা খোলা আছে।”

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে আসন রফার জন্য আলিমুদ্দিন স্ট্রীটের সি.পি.এম সদর দপ্তরে যে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক হয়, আব্বাসের ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের হয়ে তাতে যোগ দেন দলের চেয়ারম্যান নওসাদ সিদ্দিকি। সেখানে জোটের কাছে ৮০ টি আসন চেয়ে বসেন তিনি। গোড়ায় ৬৪টি আসন নিয়ে প্রাথমিক কথার পর একলাফে ১৬টি আসন বেড়ে যাওয়ায় বৈঠকে উপস্থিত কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি অধীর চৌধুরী কিঞ্চিত অসন্তোষ প্রকাশ করেন। তবে, অসন্তোষ আরো বাড়ে নওসাদ যখন দুই ২৪ পরগনার প্রায় সব আসন এবং নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগর ও তেহট্ট মহকুমার আসনগুলি চেয়ে বসেন। সিপিএমের পক্ষে বৈঠকে বসা বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসু আব্বাসের দলকে সাথে নিয়ে চলতে চাইলেও – এই দাবিতে বিরক্ত হন। প্রশ্ন ওঠে, আব্বাস কি গোঁড়া মৌলবাদী আসাদউদ্দিন ওয়াইসীর সাথে সম্পর্ক ছেদ করেছেন? গত মাসেই আব্বাসদের ফুরফুরা শরীফের সদর দপ্তরে ঘুরে যান ওয়াইসী। বিজেপি’র সহযোগী হিসেবে সংখ্যালঘু ‘ভোট কাটুয়া’ওয়াইসী বাংলার ভোটেও মালদা, দুই দিনাজপুর, মুর্শিদাবাদ ও নদীয়ায় প্রার্থী দেওয়ার বিষয়ে খোলাখুলি মত দেন। তারপরই আব্বাসের সাথে তার ঘনিষ্ঠতা সামনে আসে। তবে, তারই মাঝে আব্বাস দলিত ও মুসলিমদের নিয়ে তার সেকুলার ফ্রন্টের ঘোষণা করেন। প্রায় ঠান্ডাঘরে চলে যায় তার মিম’র সাথে সম্পর্ক। এরই মাঝে বাম-কংগ্রেস জোটের সাথে বৈঠকে আব্বাস নিজে না গিয়ে নওসাদকে পাঠানোয় জল্পনা আরো বাড়ে। অধীর বলেন, ” ওরা ওদের দাবির কথা বলেছেন। আমরা আবার অলোচনা করবো। ওদের সাথে নিতে আমরা এখনো আগ্রহী।” তবে, জোট কিন্তু এবার খোলসা করে জানতে চায় আব্বাস আর ওয়াইসীর আসল রসায়ন। কারণ, ওয়াইসীর ছায়ায় নিজেদের ছবি ‘খারাপ’ করতে চায় না বামফ্রন্ট। এ সম্পর্কে আব্বাস এদিন বলেন, “৭৪ বছর ধরে দয়া পেয়েছি। আর নয়। আমাদের শর্তে আমাদের সাথে মিশতে না পারলে রাস্তা খোলা আছে, যে যার মতো চলুক। আমরাও ২৯৪ আসনেই প্রার্থী দিতে পারি। “

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here