মন্দিরের পাঁচটি গেট আটটি তালা ভেঙে প্রায় ৫ লক্ষ টাকার গহনা চুরি

0
137

সংবাদদাতা, বাঁকুড়া:- আবারো মন্দির নগরী বিষ্ণুপুরে চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হলো । বৃহস্পতিবার বিষ্ণুপুর পৌরসভার সাত নম্বর ওয়ার্ডের সাক্ষী গোপাল পাড়ায় সাক্ষী গোপাল মন্দিরে এই দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা সকাল হতেই সকলের নজরে আসে ।

স্থানীয় সূত্রে জানতে পারা যায় , মন্দিরের মোট পাঁচটি গেট রয়েছে এবং যেখানে আটটি তালা ছিল। সেই চক্রব্যূহ ভেঙে চোরের দল এই দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা ঘটায় । পাশাপাশি আশেপাশের সাধারণ মানুষের বাড়িতেও বাইরের দিক থেকে গেট লক করে দেওয়া হয়। মন্দির সূত্রে জানতে পারা যায় , সোনা ও রুপো মিলিয়ে প্রায় ৫ লক্ষ টাকার গহনা চুরি গিয়েছে। রাজা বীর হাম্বীরের আমলে এই মন্দির তৈরি হয়েছিল। তারপর থেকে আজ পর্যন্ত মন্দিরে কোনোদিন চুরির ঘটনা ঘটেনি বলে জানা যায় ।

মন্দিরের সেবায়েত কালাচাঁদ মোহন বলেন, “সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি মন্দিরে তালা ভাঙ্গা এবং ঠাকুরের সমস্ত গয়না খোয়া গিয়েছে।” তবে স্থানীয় কেউ এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত আছে বলেই তার অনুমান। পাশাপাশি এই ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের কঠোর শাস্তির দাবি জানান তিনি।

এদিকে এই দুঃসাহসিক চুরির ঘটনার পর আবারো রাতের বিষ্ণুপুরের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে । বারবার রাতের অন্ধকারে এই ধরনের চুরির ঘটনা ঘটায়, পুলিশ প্রশাসনের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন এলাকার সাধারণ মানুষরা ।

গৌতম মহন্ত নামে এক ব্যক্তি বলেন, “বিষ্ণুপুর পৌরসভাকে এই এলাকায় একটি লাইটের ব্যবস্থা করার জন্য বলা হয়েছিল কিন্তু তা করা হয়নি । পাশাপাশি রাতের অন্ধকারে কোনো পুলিশি টহলদারি নেই, যার কারণে এই ঘটনা ঘটেছে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here