প্রধানমন্ত্রীর চিঠি নিয়ে জনসম্পর্ক অভিযান বিজেপির, কটাক্ষ তৃণমূলের

0
126

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- প্রধানমন্ত্রীর চিঠি নিয়ে সোনামুখী ব্লকের বিভিন্ন প্রান্তে জনসম্পর্ক অভিযান সারছেন সোনামুখীর বিজেপি কর্মীরা। দ্বিতীয় মোদি সরকারের এক বছরের কর্মসূচিকে তুলে ধরা হয়েছে এই চিঠির মধ্য দিয়ে। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে নিজেদের জায়গাকে পাকা করতে এবং মানুষের সঙ্গে জনসম্পর্ক তৈরি করতে রাজ্য বিজেপির এই নতুন কৌশল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ। লোকসভা নির্বাচনে সোনামুখী বিধানসভায় বিজেপি লিড দিয়েছিলেন আর সেই জায়গাকে ধরে রাখতে বিজেপি বদ্ধপরিকর। তাই নাওয়া-খাওয়া ভুলে প্রধানমন্ত্রীর চিঠি নিয়ে সোনামুখী ব্লকের বিভিন্ন প্রান্তে সাধারণ মানুষের দরজায় দরজায় পৌঁছে যাচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা। তাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর লেখা চিঠি। শনিবার বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার সাধারণ সম্পাদক অমরনাথ শাখা নবাসন পঞ্চায়েতের করিমপুর গ্রামে জনসম্পর্ক অভিযান সারলেন। অমরনাথ শাখা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার তপশিলি মোর্চার সভাপতি দিবাকর ঘরামী, চঞ্চল সরকার, বাপি হাজরা, কল্যাণ চ্যাটার্জি সহ একাধিক বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপি নেতা অমরনাথ শাখা বলেন, মানুষ মুখিয়ে আছে ২০২১ সালে তৃণমূল কংগ্রেসকে পশ্চিমবাংলা থেকে কিভাবে বিদায় করবে । তবে বিজেপির এই কর্মসূচিকে কটাক্ষ করেছেন সোনামুখীর তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব। তৃণমূল বিজেপির এই কর্মসূচিতে একেবারেই পাত্তা দিতে নারাজ। সোনামুখী ব্লক সভাপতি ইউসুফ মন্ডল বলেন, বিজেপি বুঝে গেছে তাদের কাছ থেকে মানুষ সরে গেছে তাদের পায়ের তলার মাটি সরে গিয়েছে। তাই তারা যেন তেন প্রকারে মানুষকে বিভ্রান্ত করে অশান্তির বাতাবরণ তৈরি করার চেষ্টা করছে । তাই যতই ছলচাতুরি করুক মানুষ আর ওদের বিশ্বাস করবে না। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে বাংলার উন্নয়ন করে চলেছে তাতে আগামী দিনে বাংলার মানুষ তথা সোনামুখীর মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর সাথেই থাকবে বলে তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here