সোনামুখীতে তৃনমুলের নাগরিক সন্মেলন সভা করলেন শুভেন্দু অধিকারী

0
347

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- আমাদের পৌর বোর্ড একশো শতাংশ কাজ করতে পারেনি। সিপিএমকে কুড়ি বছর সুযোগ দিয়েছেন। আমাদের আর একটা সুযোগ দিন’। সম্প্রতি বাঁকুড়ার সভার সূরে এই সোনামুখীতেও একই কথা বললেন তৃণমূল নেতা ও রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। শনিবার সোনামুখীতে নাগরিক সম্মেলনে যোগ দিতে এসে তিনি আরো বলেন, ‘উপরে দিদি মমতা ব্যানার্জী, নিচে গ্যারেন্টার শুভেন্দু অধিকারী। ‘শুভেন্দু অধিকারী এদিন স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে জেলার দুই বিজেপি সাংসদকে এক হাত নেন। বাঁকুড়ার সাংসদ ডাঃ সুভাষ সরকার ও বিষ্ণুপুরের সৌমিত্র খাঁ এর নাম করে বলেন, ‘শুধু ভাষন দিলে হবে না, কাজ করে দেখাতে হবে’। উন্নয়নের প্রতিযোগীতা হোক, মানুষ বিচার করবেন। ‘ভাষণ দিয়ে একবার ভোট হয়। বারবার হয় না, খড়গপুর সে কথা প্রমাণ করেছে। ‘ভাষণের সাথে রেশন দিলেই’ ভোট পাওয়া যায় বলে তিনি দাবী করেন। স্থানীয় শালী নদীতে একটি ‘ফুট ব্রীজ’ তৈরী করা হবে ঘোষণা করে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ওভার লোডিং বালি চলাচলের জন্য বড় সেতু করবো না। ছাত্র, ছাত্রী, অ্যাম্বুল্যান্স ও দমকলের গাড়ি যেতে পারে এমন ব্যবস্থা করার জন্যই এই সিদ্ধান্ত। তাঁর ‘কারো সাথে এক কাপ চায়ের সম্পর্ক নেই’ দাবী করে বলেন, আমি শুধু মানুষের উন্নয়টাই বুঝি। আসন্ন পৌরভোট প্রসঙ্গে বলেন, সব রাজনৈতিক দল প্রার্থী দেবে, সবাই নিজেদের মতো করে প্রচার করবে। আর শেষ কথা বলবেন জনতা জনার্দন। সোনামুখীতে এসে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী এদিন নগর জীবিকা কেন্দ্রের উদ্বোধনের পাশাপাশি এই পৌরসভার কাজকর্মের খতিয়ান সমৃদ্ধ একটি পুস্তিকার আনুষ্ঠানিক প্রকাশ করেন। এ দিনের অনুষ্ঠানে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দলের নেতা ও বাঁকুড়া জেলা পরিষদের ‘মেন্টর’ অরুপ চক্রবর্ত্তী, জেলা পরিষদের সহ সভাধিপতি ও দলের জেলা সভাপতি শুভাশীষ বটব্যাল, সোনামুখী পৌরসভার চেয়ারম্যান সুরজিৎ মুখার্জী প্রমু

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here