বিষ্ণুপুরের SDPO সুকোমলকান্তি দাসকে বদলির নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের

0
1002

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ দীর্ঘ টালবাহানা শেষে যবনিকা পতন। অবশেষে লোকসভা নির্বাচনের আগে বাঁকুড়ার এসডিপিও পদ থেকে বদলি করা হল সুকোমলকান্তি দাসকে। ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশনের তরফে বিষ্ণুপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সুকমলকান্তি দাসের কাছে তাঁর বদলির ইস্তেহার পৌঁছে গেছে বলে জানা গেছে। আগামি ১২ই মে বাঁকুড়া জেলায় ষষ্ঠ দফায় লোকসভা নির্বাচন, তার আগেই বিষ্ণুপুরের এসডিওর বদলির ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফের সরগরম হয়ে উঠেছে বাঁকুড়া জেলা। তবে নির্বাচন কমিশনের এহেন পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে বিজেপি। এইবিষয়ে বিজেপির বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার সভাপতি স্বপন ঘোষ জানান, অনেকদিন আগে থেকেই ওই পুলিশ আধিকারিককে বদলির বিষয়ে দাবি জানানো হয়েছিল। তাঁর অভিযোগ, গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিষ্ণপুর লোকসভার কোথাও বিরোধী দলকে মনোনয়ন পেশ করতে দেওয়া হয়নি। যার পুরোভাগে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন বিষ্ণুপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সুকমলকান্তি দাস। নিজের পদ ও প্রভাব খাটিয়ে এলাকায় বিরোধীদের মনোনয়ন পেশ করতে বাধা দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছিল এই পুলিশ আধিকারিকের বিরুদ্ধে। উল্লেখ্য এর আগে বর্তমান বিজেপির বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী সৌমিত্র খা-একাধিকবার এই বিষ্ণুপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সুকমলকান্তি দাসের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন। তাঁর আপ্তসহায়ককে গুম করার মতো গুরুতর অভিযোগও তুলেছিলেন তিনি। তাঁর অভিযোগ ছিল, বিষ্ণুপুরের নিজের পদের প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্ন বেআইনি কাজকর্ম চালিয়া যাচ্ছেন ওই পুলিশ অফিসার। শেষপর্যন্ত ভোটের আগেই নির্বাচন কমিশন বিতর্কিত ওই পুলিশ অফিসারকে বদলির নির্দেশ দিল। এইবিষয়ে বিষ্ণপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান শ্যাম মুখার্জী জানান, নির্বাচন কমিশন আইন অনুযায়ী তাদের কাজ করছে। এব্যপারে ব্যক্তিগত অভিমতের কোন জায়গা নেই, তবে আসন্ন লোকসভা ভোট শান্তিপূর্ণভাবেই হবে বলে তিনি আশাবাদী।