পাটকাঠির স্তূপ থেকে মিলল গৃহবধূ এবং প্রতিবেশী যুবকের জ্বলন্ত মৃতদেহ

0
377

সংবাদদাতা, বনগাঁ- বাড়ির পাশে পাটকাঠির স্তূপ থেকে মিলল গৃহবধূ এবং এক প্রতিবেশী যুবকের জ্বলন্ত মৃতদেহ। এই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ থানার মনিগ্রাম শিবপুর বটতলা এলাকায়। এই দুজনের মৃত্যুকে ঘিরে তৈরী হয়েছে এক ধোঁয়াশা। স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, এদিন রাত ২ টা নাগাদ তপতী মণ্ডল (৪০) নামে এক গৃহবধূ তার বাড়ির পাশে পাটকাঠির স্তূপে আগুনের দ্বারা দাউদাউ করে জ্বলতে থাকে। গভীর শীতের রাতে প্রথম দিকে স্থানীয় প্রতিবেশীরা কিছুই বুঝতে পারেনি। বেশ কিছুটা সময় অতিবাহিত হওয়ার পর স্থানীয়রা দেখতে পান বাড়ির পাশে দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে। তৎক্ষনাৎ খবর দেওয়া হয় দমকল বিভাগকে। বেশ কিচ্ছুক্ষন পর দমকল বাহিনী কয়েকটি ইঞ্জিন নিয়ে এসে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায়। প্রায় ১ ঘণ্টার দৃঢ় চেষ্টার পর তারা আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। আগুন নেভানোর পরপরই তারা দেখতে পান পাটকাঠির স্তূপের মধ্যে তপতী মণ্ডল নামে ওই গৃহবধূ এবং স্থানীয় যবুক প্রসেনজিৎ বৈদ্যের জ্বলন্ত দেহ। ঘটনার খবর পেয়ে স্থানীয়রা সঙ্গে সঙ্গে বনগাঁ থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে দু জনের দেহ উদ্ধার করে এবং ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। পুলিশ অবশ্য গৃহবধূ ও প্রতিবেশী যবুকের মৃত্যু ঘিরে খানিকটা ধন্দের মধ্যে রয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের মত দুজনকেই খুন করা হয়েছে। তবে কি কারনে খুন করা হয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। প্রসেনজিৎের পরিবারের দাবি, তপতীর সাথে প্রসেনজিৎের খুব ভাল সম্পর্ক ছিল। তবে দু জনের মধ্যে বিবাহগত কোনো সম্পর্ক তৈরী হয়েছিল নাকি সেটিও তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। খুনের কিনারা করার জন্য পুলিশ দুই পরিবারের সঙ্গে জোরদার জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। দু জনের মধ্যে সম্পর্ক কেমন ছিল তা খতিয়ে দেখার জন্য পুলিশ স্থানীয় প্রতিবেশীদের থানায় আসার নির্দেশ দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here