“শ্যামল সাঁতরার স্ত্রী চাইনিজ প্রোডাক্ট, আর আমি মেড ইন ইন্ডিয়া”- বিস্ফোরক মন্তব্য সুজাতা খাঁর

0
2868

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ লোকসভা ভোটের প্রচারে শুরু থেকে না থাকলেও লোকসভা ভোটের প্রচারের মাঝপথে ভোটের ময়দানে নামতে হয়েছিল তাঁকে। আর লড়াইয়ের ময়দানে নামার পর থেকে জীবনের নতুন ইনিংস ব্যাকফুটে নয়, সমানে ফ্রন্টফুটে খেলে চলেছেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ-এর স্ত্রী সুজাতা খাঁ। সৌমিত্র খাঁর বিষ্ণুপুরে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে। ফলে লোকসভা নির্বাচনেই হাতে খড়ি হয় স্কুল শিক্ষিকা সুজাতা খাঁ। কিন্তু ভোট প্রচারে নামার পর থেকেই প্রত্যেক দিন খবরের শিরোনামে থেকেছেন তিনি। সে প্রচারের ময়দানেই হোক কিংবা বিরোধীদের মন্তব্য প্রসঙ্গেই হোক। এককথায় বলতে গেলে, বিষ্ণুপুর কেন্দ্রে লোকসভা ভোটের বিজেপি প্রার্থী হিসেবে সৌমিত্র খাঁ-র চেয়েও জনপ্রিয়তার দিক থেকে শীর্ষে রয়েছেন বলেও অত্যুক্তি হয়না। এহেন সুজাতা খাঁ ফের খবরের শিরোনামে। এবার বিষ্ণুপুরের তৃণমূল প্রার্থী শ্যামল সাঁতরার স্ত্রীকে “চাইনিজ প্রোডাক্ট” বলে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন সুজাতা খাঁ। এদিন বিষ্ণুপুরে প্রচারে বেড়িয়ে তৃণমূল প্রার্থী শ্যামল সাঁতরার স্ত্রী প্রীতিকণা সাঁতরাকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করে তাঁর বক্তব্য, “উনি চাইনিজ প্রোডাক্ট, তাই আওয়াজ বেশি করেন”। মেড ইন ইন্ডিয়ার সঙ্গে, মেড ইন চায়নার কোনও তুলনাই হয়না বলে নিজেকে “মেড ইন ইন্ডিয়া” বলেও দাবি করেন সুজাতা খাঁ। উল্লেখ্য, গত ১৬ই এপ্রিল বাঁকুড়ার কোতুলপুর এলাকায় তৃণমূল প্রার্থী শ্যামল সাঁতরার হয়ে প্রচারে নেমেছিলেন প্রীতিকনা সাঁতরা, সেই নিয়েই সুজাতা খাঁ শ্যামল সাঁতরার স্ত্রীকে আক্রমণ করেন। ফলে এবার রাজনীতির ময়দানেও লড়াই শুরু হয়ে গেল বিরোধী দলের দুই প্রার্থীদের স্ত্রীদের মধ্যে। এদিন প্রচারে সুজাতা খাঁ জানান, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রে মোদী সরকার থাকবেই, কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেস ১০টা আসনও পাবে তো? তাঁর এই মন্তব্য শাসকদলের কপালে ভাঁজ ফেলতে যথেষ্ট। বলা যেতে পারে, ভোটের দ্বিতীয় দফার শেষে রাজ্যে শাসকদলকেই ওপেন চ্যালেঞ্জ করে বসলেন সুজাতা খাঁ। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার স্বামী শ্যামল সাঁতরা তথা তৃণমূলের হয়ে ভোট প্রচারে নামেন স্ত্রী প্রীতিকনা সাঁতরা। তবে তিনি সুজাতা খাঁ-র মতো প্রথম নয়। এর আগেও শ্যামল সাঁতরা তথা তৃণমূলের হয়ে রাস্তায় নেমে প্রচারে নেমেছেন প্রীতিকনা দেবী। বৃহস্পতিবার কোতুলপুরের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে পায়ে হেঁটে প্রচার করেন তিনি। তাঁর বক্তব্য, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে রাজ্যে যা উন্নয়ন হয়েছে তাঁর জন্য প্রত্যেক রাজ্যবাসী গর্বিত। তাই সকলেই চাইছেন এবারেও শ্যামল সাঁতরা ভোটে জয়লাভ করুন। তবে এখনও এলাকায় যেসমস্ত কাজ বাকি আছে তা শ্যামল সাঁতরা ভোটে জিতে পূরণ করবেন। আগামী ১২ মে বাঁকুড়া জেলায় লোকসভা ভোট। তাই তার আগেভাগেই কেন্দ্রের সমস্ত অঞ্চলে পৌঁছাতে চাইছেন তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। সেইমতো শুক্রবার সকাল থেকে ইন্দপুর ব্লক এলাকার বিভিন্ন গ্রামে জনসংযোগের কাজ শুরু করলেন তিনি। এই ব্লকের ভেদুয়াশোল গ্রাম পঞ্চায়েতের বনকাটা, মৌলাডাঙ্গা, গোবিন্দপুর সহ বেশ কয়েকটি গ্রামে হুডখোলা গাড়িতে চেপে রোড শো করলেন তৃণমূল প্রার্থী। শাসক দলের প্রার্থীকে ঘিরে সাধারণ মানুষের উৎসাহ উদ্দীপনা ছিল চোখে পড়ার মতো। রোড শো এর মাঝেই তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মুখোপাধ্যায় মৌলাডাঙ্গা গ্রামে আটচালায় বসে সাধারণ মানুষদের সঙ্গে কথা বলেন।