রাজ্যে ভোটপ্রচারে রঙ্গতামাশা, বানর কোলে মুনমুন সেন

0
854

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ ভোটের আমেজে রাজ্য। নিত্যদিন নিত্যকৌশলে ভোটপ্রচারে নেমে জনগণের নজর কাড়ার চেষ্টা। শাসক, বিরোধী কেউই কাউকে ভোটের মুখে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ। মারধরের ঘটনা, দেওয়লা লিখন মুছে দেওয়া সহ বিভিন্ন অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগের জেরে সরগরম রাজ্য-রাজনীতি। কিন্তু তাসত্বেও প্রচার কাজে স্বমহিমায় শাসক দল ও বিরোধী দলের প্রার্থীরা। কখনও হুড খোলা গাড়িতে, কখনও পায়ে হেঁটে, কখনও টোটো কিংবা অটো চালিয়ে আবার কখনও নৌকায় চড়ে ভোট প্রচারের ছবি উঠে আসছে খবরের শিরোনামে। ভোটের দিন যতই এগিয়ে আসছে ততই প্রচারে নিত্যনতুন পন্থা আনছে রাজনৈতিক দলগুলি। যার এবারের উদাহরণ দক্ষিন ২৪ পরগনার ক্যানিং থানার জয়নগর লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী অশোক কান্ডারীর ভোটপ্রচারে। রবিবার তিনি ভোট প্রচারে পথে নামতেই তাঁকে জামাই বরণ করলেন এলাকাবাসীরা। মাঝে রাস্তাতেই ফুলের মালা, চন্দন পড়িয়ে প্রার্থীকে রীতিমতো জামাই বরণ করলেন গ্রামের মহিলারা। এরপর বিজপি প্রার্থী স্থানীয় একটি ভারতমাতার মন্দিরে পূজা দিয়ে হুড খোলা গাড়িতে চেপে ক্যানিংয়ের বিভিন্ন অঞ্চলে প্রচার করেন। প্রায় কয়েক হাজার বিজেপি কর্মী এই পথ মিছিলে অংশ নেন। অন্যদিকে জয়নগর লোকসভা কেন্দ্রেরই আরএসপি প্রার্থী সুভাষ নস্কর বাইকে চড়ে সকাল নাগাদ ভোট সেরে নিলেন। কয়েকশ সিপিএম ও আরএসপি কর্মী এই ভোট প্রচারে অংশ নেন। অন্যদিকে রঙ্গ তামাশার এই ভোট প্রচারে পিছিয়ে নেয় দুর্গাপুর শহরও। রবিবার সকালে কংগ্রেস প্রার্থী তাঁর ভোট প্রচার শুরু করলেন ভিড়িঙ্গি কালীবাড়িতে পুজো দিয়ে। তবে বিভিন্ন রঙ্গের এই ভোট প্রচারে সবথেকে বেশি নজর কাড়লেন আসানসোল কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মুনমুন সেন। শনিবার সন্ধ্যায় অন্ডালের দক্ষিণখণ্ড ধর্মরাজ তলায় নির্বাচনী সভায় বানর ছানা কোলে দেখা মিললো তারকা প্রার্থী মুনমুন সেনের। সভামঞ্চে বসার পর প্রার্থী মুনমুন সেন এক তৃণমূল সমর্থকের কাছে থাকা একটি বানর ছানাকে দেখামাত্রই তিনি সেই বানরটিকে কোলে তুলে নেন। অভিনব এই দৃশ্য দেখে হতবাক হন সভায় উপস্থিত তৃণমূল কর্মী সমর্থক ও গ্রামবাসীরা । সভায় প্রার্থী মুনমুন সেন ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী মলয় ঘটকও।