২০০০ টাকার নোট কি এবার বন্ধের মুখে?

0
546

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুরঃ- শিল্পাঞ্চল জুড়ে রয়েছে প্রায় শ’দুয়েক এটিএম কাউন্টার। কিন্তু গ্রাহকরা টাকা তুলতে গিয়ে জানতে পারছেন যে ২ হাজার টাকার কোন নোট’ই মেশিন থেকে বের হচ্ছে না। ৫০০ টাকা, ১০০ টাকা ও ২০০ টাকার নোটে কেবলমাত্র পাওয়া যাচ্ছে এটিএম গুলি থেকে। এটিএম এ কর্মরত সিকিউরিটি কে জিজ্ঞেস করলে তিনি জানান যে, এখন থেকে আর ২০০০ টাকার নোট মেশিনে ভরা হচ্ছে না তাই দুই হাজার টাকার বদলে ৫০০ টাকা, ২০০ টাকা ও ১০০ টাকার নোট বেরোচ্ছে। মেশিন থেকে বিস্তারিত তথ্যের জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে জিজ্ঞেস করলে তারা মাথা নাড়িয়ে জানিয়ে দেন যে কথাটি ঠিক নয়। কিন্তু নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মী জানিয়ে দিলেন যে তাদের কাছে ই মেইল মারফত খবর এসেছে যাতে গ্রাহকদের ২০০০ টাকার নোট না দেওয়া হয়। ওই উক্ত ইমেইলটি তে পরিষ্কারভাবে ব্যাংক কর্মীদের কে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে কোনো ভাবেই ২০০০ টাকার নোট গ্রাহকদের দেওয়া যাবে না ও এটিএম ২০০০ টাকার নোট ভর্তি করা হবে না। শুধুমাত্র গ্রাহকরা যদি ব্যাংকে এসে ২০০০ টাকার নোট জমা দেন সেটা নিতে বলা হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যাংকের ওই আধিকারিক জানান সম্ভবত আর বি আই ২০০০ টাকার নোট টাক শালে আর ছাপাচ্ছে না। ধীরে ধীরে বাজার থেকে ২০০০ টাকার নোট তুলে নেওয়া হবে বলে তিনি জানান। এর অন্যতম কারণ হিসেবে যা জানা যাচ্ছে সেটি হলো নতুন ২০০০ টাকার নোট টি খুব সহজেই জাল করা যাচ্ছে। এবং সরকার ২০১৬ সালের ২৮ শে নভেম্বর যখন নোট বন্দি করেছিলেন তখন পরিষ্কারভাবে জানিয়েছিলেন যে এই ২০০০ টাকার নোট টি কোন ভাবেই জাল করা সম্ভব নয়। কিন্তু তা ভুল প্রমাণ হল আরেকটি কারনে ২০০০ টাকার নোট বন্ধ করার পেছনে আছে বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্মীরা। তারা বলছেন যে ২০০০ টাকার নোট ১০০০ টাকার পুরনো নোটের তুলনায় বেশি করে জমিয়ে রাখা হচ্ছে। কালোবাজারিদের দ্বারা কালো টাকা মজুদ করে রাখা সহজ হয়ে গেছে। ২০০০ টাকার নোটের জন্য এ মত অবস্থায় যদি এই খবরটি ঠিক হয় তাহলে আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই দু হাজার টাকা আর বাজারে দেখতে পাওয়া যাবে না বলে আশা করছেন সাধারণ শিল্পাঞ্চল বাসীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here