তৈরীর দু’বছরের মধ্যে জনস্বাস্থ্য কারিগরী দপ্তরের জলের ট্যাঙ্ক ভেঙ্গে পড়ার ঘটনায় বঙ্গ রাজনীতিতে বহুচর্চিত ‘কাটমানি’ বিতর্ক ফের মাথাচাড়া দিল

0
470

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- বুধবার বিকেল থেকে সংবাদ শিরোনামে থাকা বৃহস্পতিবার বাঁকুড়ার সারেঙ্গার ফতেডাঙ্গা গ্রামে গিয়ে ‘কাটমানি’ বিতর্ক উস্কে দিলেন স্থানীয় বিজেপি সাংসদ ডাঃ সুভাষ সরকার। এলাকা পরিদর্শণের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই ঘটনা ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার ভেঙ্গে পড়ার প্রথম নিশান’ বলে দাবী করেন। একই সঙ্গে তিনি বলেন, পুরো সরকারটাই ‘সিণ্ডিকেট ও কাটমানি’র সরকারে পরিনত হয়েছে। ঐ জলের ট্যাঙ্ক তৈরীতে নিম্ন মানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে অভিযোগ করে কোন কেন্দ্রীয় সংস্থাকে দিয়ে এই ঘটনার তদন্ত দাবী করেন। একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সংস্থা জঙ্গল মহলে ১৬ টি এই ধরণের জলের ট্যাঙ্ক নির্মাণ করেছে সব কটি ট্যাঙ্কেই কি ধরণের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করেছে সেবিষেও তদন্ত দাবী করেন। কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা রাজ্য সরকার এইভাবে ‘নয়ছয়’ করেছে অভিযোগ তুলে ঘটনার পর রাজ্যের কোন প্রতিনিধি এই এলাকায় না আসার তারও তীব্র সমালোচনা করেন সাংসদ ডাঃ সুভাষ সরকার।বিজেপি সাংসদের বক্তব্যকে সমর্থণ জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারের একাংশও। গ্রামবাসী প্রসেনজিৎ মুর্ম্মুরও অভিযোগ, অত্যন্ত নিম্ন মানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহারের কারণেই তৈরীর দু’বছরের মাথায় জলের ট্যাঙ্কটি ভেঙ্গে পড়লো। এক্ষেত্রেও শাসক দলের নেতাদের একাংশ ‘কাটমানি’ খেয়েছেন বলে তার স্পষ্ট অভিযোগ। এই ঘটনার পর সংশ্লিষ্ট এলাকায় তীব্র জলসংকট দেখা দেবে বলে তিনি জানান।প্রসঙ্গত, বুধবার দিন দুপুরে সারেঙ্গার ফতেডাঙ্গা গ্রামে জনস্বাস্থ্য কারিগরী দপ্তরের তৈরী পানীয় জলের ট্যাঙ্ক ভেঙ্গে পড়ে। এই ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি আগাম আন্দাজ করতে পারায় স্থানীয়রা সতর্ক হয়ে যাওয়ায় কোন প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here