আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিশ্বনাথ পারিয়ালকে তৃণমূল কি টিকিট দেবে ?

0
587

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুরঃ- শুরু হয়ে গেছে বিধানসভা নির্বাচনের তোড়জোড় | সাধারণত দুর্গাপুর লালদুর্গ | সেই লালদুর্গে এবার কংগ্রেসের এম এল এ বিশ্বনাথ পাড়িযালের রাজনৈতিক গতিপ্রকৃতি কি হবে ? সেইদিকে তাকিয়ে দুর্গাপুর রাজনৈতিক মহল |

২০১৬ তে বিধানসভা নির্বাচনে দুর্গাপুর পশ্চিমে কংগ্রেস সিপিএম জোটের কংগ্রেস প্রার্থী হয় বিশ্বনাথ পাড়িয়াল | তাতে বড় সাফল্য পায় জোট। প্রধানত সিপিএমের ভোটেই জিতে যান জোটের প্রার্থী বিশ্বনাথ পাড়িয়াল | আর দুর্গাপুর পূর্ব আসনে জোটের সিপিএম প্রার্থী সন্তোষ দেবরায় বিজয়ী হন | ফলে ঘাসফুল শূন্য হয়ে যায় দুর্গাপুরে।

এখন ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে পুনরায় জোটের শর্ত অনুযায়ী এবারও হয়তো দুর্গাপুর পশ্চিম আসনটি কংগ্রেসকে ছেড়ে দেবে সি পি এম | কিন্তু এখন লক্ষ টাকার প্রশ্ন ২০১৬ বিধানসভা নির্বাচনে জোটের বিজয়ী প্রার্থী কংগ্রেসের বিধায়ক বিশ্বনাথ পাড়িযালের ভবিষ্যৎ কি হবে?
এক কংগ্রেস নেতার বক্তব্য, ২০১৬ সালে বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল টিকিট না দেওয়াই প্রচন্ড হতাশায় ভেঙে পড়েন বিশ্বনাথ পাড়িয়াল | সেইসময় যেভাবেই হোক, যেকোনো উপায়ে হোক, যেকোনো রাজনীতি দলের টিকিট পাওয়াটাই বিশ্বনাথবাবুর মূল লক্ষ্য ছিল | সেই অনুযায়ী রাজ্য কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর শরণাপর্ণ হন | শেষ পর্যন্ত অধীরবাবুর দয়াতে দুর্গাপুর পশ্চিম আসনে জোটের কংগ্রেস প্রার্থী করা হয় বিশ্বনাথকে |

পরবর্তীকালে সেই বিশ্বনাথ পাড়িয়াল নীতিগত এবং নৈতিকগত ভাবে কংগ্রেসের বিধায়ক পদ থেকে পদত্যাগ না করেই তৃণমূলে যোগ দেন | এবং তৃণমূলের আই.এন.টি.টি.ইউ.সি’র জেলা সভাপতি পদ আঁকড়ে ধরেন | এমন ঘটনায় ক্ষুব্ধ হন অধীরবাবু | এহেন বিশ্বনাথ পাড়িয়ালকে ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস আর টিকিট দেবে না এটা একপ্রকার নিশ্চিত |

আর তৃণমূল যদি বিশ্বনাথবাবুকে টিকিট না দেয় তাহলে তিনি কি করবেন ?

তৃণমূলীদের বক্তব্য, হয়তো সেটা বুঝতে পেরেই আগে ভাগে বেসুরো হচ্ছেন বিশ্বনাথবাবু | দলকে চাপে রাখার চেষ্টা করছেন | অনেকে আবার মনে করছেন, বিশ্বনাথবাবু বিজেপিতে যাওয়ার চেষ্টা করছেন | উপরে যতই তিনি বলুন, বিজেপিতে যাবেন না, কিন্তু তলায় তলায় চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে সূত্রে খবর | এব্যাপারে বিজেপির এক নেতা বলেন, বিশ্বনাথবাবু যদি বিজেপিতে যান তাসত্বেও বিজেপির নেতৃত্ব এই বিধানসভা নির্বাচনে বিশ্বনাথবাবুকে টিকিট দেবে না | এটা কনফার্ম |

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, যদি এইরকম অবস্থা হয় তাহলে বিশ্বনাথবাবুর রাজনৈতিক ক্যারিয়ার বিশ বাও জলে | এম এল এ থাকাকালীন যে রাজনৈতিক এডভ্যান্টেজ বিশ্বনাথবাবু পাচ্ছিলেন তা আর পাবেন না | এম এল এ থাকাকালীন দর কষাকষির যে সুযোগ রয়েছে বিশ্বনাথবাবুর হাতে, পরবর্তীকালে তা আর না থাকতেও পারে | এমন পরিস্থিতিতে রাজনৈতিক গুরুত্ব হারাতে পারেন বিশ্বনাথবাবু |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here