আজ বিপত্তারিণী পুজোর দিন মা কে কী বললে তিনি আমাদের কৃপা করবেন?

0
845

বহরমপুর থেকে সঙ্গীতা চৌধুরীঃ- আজ বিপত্তারিণী পুজো। মা সকলকে বিপদ থেকে উদ্ধার করেন। কথিত আছে বিপত্তারিণী নয় সকল বিপদ থেকে ভক্তদের রক্ষা করে থাকেন। তাকে যদি এক মনে ডাকা হয় তাহলে তিনি ভক্তের মনোবাঞ্ছা পূর্ণ করেন। কিন্তু আমরা মানুষরা এটাই জানিনা যে তাকে কিভাবে ডাকবো? কি বা চাইবো তার থেকে? শ্রীরামকৃষ্ণ ভগবান কে কী চাইতে হয় তা বলেছিলেন? ইশ্বর চাইলে আমাদের এমন জিনিস দান করতে পারেন যা চিরকালীন। তাই আজ স্নান করে সকাল বেলায় অথবা বিকেলবেলায় শুদ্ধ বস্ত্র পরিধান করুন। তারপর ঘরে থাকা যে কোনো দুর্গার ছবির সামনে করজোড়ে বসে প্রার্থণা করুন। প্রার্থনা করে তার থেকে ভক্তি চেয়ে নিন। তিনি ভক্তি দিয়ে থাকেন, তিনি জগতের যাবতীয় যাবতীক যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দিয়ে থাকেন। তাই আজকে তার চরণে প্রণীত হয়ে ভক্তি চেয়ে নিন। মা হলেন পরম বৈষ্ণবী। তিনি সাত্ত্বিক ভোজন করে থাকেন। তার সামনে করজোরে বলুন-“হে পরম বৈষ্ণবী এই গুণহীনকে ভক্তি প্রদান করুন। আমি যেন জন্ম জন্মান্তরে ভক্ত হয়ে থাকতে পারি। আমি যেন অন্যমনা না হ‌ই। আমি যেন চিরকাল ভক্ত থাকতে পারি। আপনার চরণেই যেন আমার মন থাকে চিরকাল। আমাকে কৃপা করো বৈষ্ণবী। “যদি আপনি দেবীর ভক্ত না হয়ে কৃষ্ণের ভক্ত হয়ে থাকেন, সে ক্ষেত্রে আপনি বলবেন-কৃপা পূর্বক আমায় আপনি আপনি কৃষ্ণ ভক্তি প্রদান করুন। আমি যেন জন্ম-জন্মান্তর কৃষ্ণের দাস হয়ে জন্মাতে পারি।” মনে রাখবেন ভগবানের কৃপা ছাড়া কোন মানুষ ই জীবনে শান্তি লাভ করে না। তাই শুভ তিথিতে আমরা যদি ভগবানের কাছ থেকে ভক্তি চেয়ে নিই আর আমরা যদি চিরকাল ভক্তই থাকি, তাহলে ভগবান এমনি আমাদের কৃপা করবেন‌। কিন্তু আমাদের মন এমনি কামনা বাসনাই লিপ্ত যে ভগবানের প্রতি আমরা চিরকাল একমনা হয়ে থাকতে পারিনা। সুখ এলেই আমরা তাকে ভুলে যায়, আবার দুঃখ এলে স্মরণ করি। তাই শুভ তিথিতে এই ভাবেই দেবীর কাছ থেকে ভক্তি চেয়ে নিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here