কেন সরস্বতী পূজা র আগে কুল খেতে নেই

0
886

সঙ্গীতা চৌধুরী, বহরমপুরঃ- ছোট থেকে শুনে আসছি সরস্বতী পুজোর দিন কুল খেতে নেই খেলে নাকি মা সরস্বতী পাপ দিয়ে থাকেন। কিন্তু জানেন কি কেন দেবীকে কুল উৎসর্গ করা হয়? শুনুন তাহলে পুরান সম্মত সেই কাহিনী।এর কারণ স্পষ্ট ভাবে উল্লেখিত আছে ব্যাস পুরাণে। যেখানে বলা আছে যে বেদব্যাস মুনি দীর্ঘকাল যাবৎ সরস্বতীর তপস্যা করেছিলেন। তপস্যা ভঙ্গের পর যখন মা সরস্বতী তার সামনে উপস্থিত হয়ে তাকে বর দান করেছিলেন তখন তিনি মা সরস্বতী কে কুল উৎসর্গ করেছিলেন এবং এই কারনেই সরস্বতী পূজার আগে কুল ভক্ষণ করা হয় না। এই নিয়ম অনুসারে সরস্বতী পুজোর দিন সরস্বতীর চরণে নিবেদন করার পরই কুল খাওয়ার নিয়ম প্রচলিত হয়। মা সরস্বতী যেদিন ব্যাসদেব কে তপস্যার জন্য আশীর্বাদ করতে ছুটেছিলেন শাস্ত্রে বলা হয় সেই দিনটি ছিল তার সঙ্গে বিষ্ণুর বিবাহের তিথি। দেবী ছুটলেন ভক্তকে আশীর্বাদ করতে। আর বিষ্ণু যোগ বলে সমস্ত টা জানতে পেরে তখনই বর রূপে চলে গেলেন। পাত্রী হিসেবে তখন দেবী সরস্বতীর ডাক পড়লো। কিন্তু দেবী তো নেই সবকিছু জেনেও বিষ্ণু প্রত্যাখ্যান করলেন দেবীকে। দেবী ফিরে এসে সমস্ত টাই জানতে পারলেন রাগে দুঃখে অপমানে তিনি বিবাহের বস্ত্র পরিত্যাগ করলেন এবং হলেন শুভ্রবসনা। সেই থেকে দেবীর শুভ্র বসন। তিনি সকল জ্ঞানের আধার।তিনি বাগদেবী। একজন নারী যে শুধু নিজের পরিচয় ছাড়াও পরিচিত হতে পারে তাই তিনি প্রতিষ্ঠা করে গেছিলেন।দেবীর শুভ্রবসনা হওয়ার আরো একটি কারণের কথা বলা হয়। তিনি হচ্ছেন জ্ঞানের দেবী। জ্ঞান হয় সবসময় শুদ্ধ ও নির্মল। কোন কলুষতা তার মধ্যে থাকে না। ঞ্জান সব সময় অহংশুন্য ও স্বচ্ছ। তাই জ্ঞানের দেবীর অন্তর এবং বাহির কলুষমুক্ত শ্বেত বর্ণ। সাদা রং আসলে আমাদের অন্তরের বিশুদ্ধতা ও নির্মলতার প্রতীক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here