“পিরিতে মজিলে মন কি বা হাড়ি কি বা ডোম” পরকীয়ায় মহিলা ধরা পড়ল স্বামীর হাতে

0
1198

রঞ্জিত সর্দার, দক্ষিণ ২৪ পরগনাঃ- পাড়ার দেওরের সঙ্গে পরকীয়ার মজে এক ছেলের মা পালাতে গিয়ে ধরা পরল স্বামীর হাতে। ঘটনাটি ঘটেছে ঢোলাহাট থানা দিগম্বরপুর হাসপাতাল মোড়ে, স্থানীয় সূত্রে জানা যায় মথুরাপুর ২ নম্বর ব্লকের নন্দকুমার পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের যুবক মনু মন্ডলের সঙ্গে বছর পাঁচেক আগে লক্ষীপুরের জ্যোৎস্নার বিয়ে হয়। দীর্ঘ দিন ঘর করার সুবাদে চার বছরের একটি ছেলেও আছে। কিন্তু প্রায় এক বছর আগে পাড়ার দেওর দেবব্রত মন্ডল ওরফে বাঘার সঙ্গে পরকীয়ায় মজে যায়, বেশ ভালো ভাবেই চলছিল গোপনে প্রেম দেখা সাক্ষাৎ। এ নিয়ে পাড়ায় গুজব তৈরি হয় চাল-চলন হাবভাব দেখে সন্দেহ স্বামীর। প্রথম প্রথম দৃষ্টিকটু হলেও অনেক বুঝিয়ে স্ত্রীকে আয়ত্তে আনার চেষ্টা করছিল স্বামী। কিন্তু কথায় বলে “পিরিতে মজিলে মন কি বা হাড়ি কি বা ডোম” দুজনের লীলা খেলা দেখে শেষ পর্যন্ত স্বামী রায়দিঘি থানায় অভিযোগ করে প্রেমিকের বিরুদ্ধে, কিন্তু যেহেতু দুজনে প্রাপ্তবয়স্ক থানার কিছু করার থাকেনা, থানা থেকে ফিরে এসে গ্রামে বসে সিদ্ধান্ত হয় প্রেমিক ছেলেটি আর প্রেমিকার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবে না সেইমতোই চলছিল এতদিন। দীর্ঘ দু’মাস দুজনের মধ্যে কথাবার্তা সম্পর্ক বন্ধ থাকলেও মন কিছুতে বাধা মানে না। প্রেমিক হুগলির মিলে কাজ করতে চলে যায়, প্রেমিকা বাড়িতে মনমরা হয়ে থাকে। গতকাল সুযোগ বুঝে ছেলেটিকে নিয়ে প্রেমিকের কাছে চলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বেরোয়, প্রেমিক এসে হাজির হয় হাসপাতাল মোড়ে, দুজনে একসঙ্গে রামগংগা যায় সেখানেই এদিক-সেদিন ঘোরাফেরা করে কোথাও এক জায়গায় রাত কাটিয়ে আবার হাসপাতালে চলে আসে, এদিকে স্বামীসহ বাড়ির লোক খোঁজা খুঁজি শুরু করে। হঠাৎ আজ সকালে গদামথুরা হাসপাতাল মোড়ে দুজনকে বসে থাকতে দেখে এলাকার মানুষের সন্দেহ হয় তাদের মধ্যে অসংলগ্ন কথাবার্তা শুনে। এলাকার লোকজন এসে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে মেয়েটি সত্যি কথা বলে দেয় ফোন নাম্বার নিয়ে স্বামীকে ফোন করা হলে দু ঘন্টার মধ্যে স্বামী এসে স্ত্রী এবং স্ত্রীর প্রেমিকের গালে সপাটে চড় চাপড় মারে। শেষমেষ এলাকার লোকের কথায় স্ত্রী এবং স্ত্রীর প্রেমিককে নিয়ে নিজের এলাকায় চলে যায় সুষ্ঠু সমাধানের জন্য। তবে স্বামী চায় ও প্রেমিকের সঙ্গে ঘর করুক তাতে তার কোন আপত্তি নেই তবে ডিভোর্স দিয়ে তাঁকে রেহাই দিক। কিন্তু মেয়েটিকে জিজ্ঞেস করায় সে বলে সে স্বামীর ঘর করতে চায়। এখন দেখার স্বামী না প্রেমিক কোথায় থাকবে সে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here